মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা

মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা স্কলারশিপ ও ক্যারিয়ার ২০২৩

মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা ও স্কলারশিপ লাভের সুযোগ বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের মধ্যে দিন দিন বেড়েই চলেছে। যদিও বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা
কানাডা-আমেরিকা ও অস্রেলিয়ায় পড়াশোনা করার প্রতি সবচেয়ে বেশি ঝোঁক।কিন্ত সীমিত স্কলারশিপ ও প্রচুর পড়াশোনার খরচের কারণে অনেকে ঐসব দেশ
থেকে মুখ ফিরিয়ে মালয়েশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হচ্ছে। কারণ এখানে পড়াশোনর খরচ তুলনামূলক কম। আবার শিক্ষা লাভের পর মালয়েশিয়াসহ
ইউরোপ-আমেরিকা ও কানাডায় চাকুরী পাওয়া তুলনামূলক সহজ হয়। এই প্রবন্ধে মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসা, মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসা চেক করার নিয়ম,
মালয়েশিয়া স্কলারশিপ, পড়াশোনার খরচ পার্টটাইম জব ফ্যাসিলিটি ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ।

মালয়েশিয়া পরিচিতি

বাংলাদেশ থেকে দক্ষিণ-পূর্ব দিকে প্রায় ৩৫০০ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত একটি উন্নত দেশের নাম মালয়েশিয়া। এর রাজধানীর নাম কুয়ালালামপুর।
বিমানে ঢাকা থেকে কুয়ালালামপুর যেতে প্রায় ৩ ঘন্টা সময় লাগে। মালয়েশিয়ার মুদ্রার নাম রিঙ্গিত। এক রিঙ্গিতে বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ২৬ টাকা (২০২৩) হয়।
এর আয়তন ৩,২৯,৭৫৮ বর্গ কিমি যা বাংলাদেশের চেয়ে প্রায় তিনগুন প্রশস্ত। আর লোক সংখ্যা মাত্র তিন কোটির মত।

এক নজরে মালয়েশিয়া?

মালয়েশিয়া পর্যটন কেন্দ্রিক দেশ। এটি এশিয়ার ইউরোপ’ খ্যাতি অর্জন করেছে। এখানে রয়েছে প্রচুর জবের সুযোগ। মালয়েশিয়ায় বর্তমানে
উচ্চশিক্ষা অর্জন করছে ১৩২ দেশের প্রায় ১,৫০,০০০ বিদেশী ছাত্র-ছাত্রী। বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য একটি এশিয়ার মধ্যে প্রথম পছন্দের স্থান।
কারণ বাংলাদেশ থেকে মাত্র ৩.৫ ঘন্টার প্লেন ভ্রমনেই চলে যাওয়া যায় মালয়েশিয়াতে। মালয়েশিয়ার প্লেনের টিকিটের দামও খুব কম।

পড়াশোনার প্রোগ্রাম সমূহ

মালয়েশিয়ার শিক্ষা ব্যবস্থা ৪টি পর্যায়ে ভাগ করা হয় নিচে ক্রম অনুসারে দেওয়া হল,
১. ডিপ্লোমা কোর্স: এটি ২ থেকে ৩ বৎসর সময় লাগে।
২. আন্ডার গ্র্যাজুয়েট কোর্স: এটি ৩ থেকে ৫ বৎসর মেয়াদী।
৩. পোস্টগ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী: ১.৫ থেকে ২ বৎসর মেয়াদী।
৪. ডক্টরাল (PhD) ডিগ্রী: ৩-৫ বৎসর মেয়াদী।

কখন সেমিস্টার শুরু হয়?

মালয়েশিয়ার উচ্চশিক্ষা ব্যবস্থা সেমিস্টার ভিত্তিক । প্রতি শিক্ষাবর্ষ সাধারণত ৩ টি সেমিস্টারে বিভক্ত। সেগুলো হচ্ছে,
১ম সেমিস্টার : জানুয়ারী-এপ্রিল।
২য় সেমিস্টার : মে-আগষ্ট।
৩য় সেমিস্টার : সেপ্টেম্বর-ডিসেম্বর।
তবে কোন বিশ্ববিদ্যালয় জানুয়ারিত সেমিস্টার শুরু হয়। আবার কোনটি মার্চে সেমিস্টার শুরু হয়। মোট কথা একেক বিশ্ববিদ্যালয়ের স্প্রিং সেমিস্টার একেকে সময়ে আরম্ভ হয়।

কেন মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা করবেন?

যেহেতু মালয়েশিয়ার স্টুডেন্ট ভিসা মাল্টিপল এন্ট্রী ভিসা সেহেতু ইচ্ছা হলেই বাংলাদেশে খুব সহজেই চলে আসা যায়। এছাড়াও মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষার মান খুবই উন্নত।
মালয়েশিয়া থেকে লেখাপড়া করে পৃথিবীর যেকোন দেশে চাকুরী অথবা পরবর্তী পর্যায়ের পড়াশোনার সুযোগ রয়েছে। কানাডা, অস্ট্রেলিয়ায় ক্রেডি ট্রান্সফারের সুযোগও রয়েছে।
এছাড়াও নিন্মক্ত শুবিধাগুলো তো আছেনই,

  • UNESCO এর জরীপে মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা বিশ্বের ৯ম তম ‘Preferable Destination For Higher Studies’.
  • এখানে পড়াশোনা, থাকা খাওয়ার খরচ খুব কম।
  • মুসলিম দেশ হওয়ায় হালাল খাবার ও ধর্ম পালন সহজ হয়।
  • মালয়েশিয়াতে জীবনযাত্রার মান খুবই উন্নত।
  • প্রায় সারা বছরই একই রকম আবহাওয়া থাকে। তবে বৃস্টি কাল শুরু হয় সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ।
  • মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষার জন্য স্টুডেন্ট ভিসার নিশ্চয়তা ৯৯%। যদি ডকুমেন্ট সঠিক থাকে।

মালয়েশিয়ার সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় সমূহ

মালয়েশিয়ায় রয়েছে অনেক বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজ। এ সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পৃথিবীর উন্নত বিশ্বের নামি দামি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সম্পৃক্ত। আর এ জন্যই মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা বাংলাদেশিদের জন্য ১ নম্বর অবস্থানে রয়েছে। তবে বাংলাদেশী শিক্ষার্থিদের জন্য মালয়েশিয়ার সরকারী ও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষার খরচ প্রায় একই।
মালয়েশিয়ান শিক্ষার্থীদের জন্য সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে কম খরচে পড়াশোনার সুযোগ রয়েছে। যেটি বাংলাদেশী কিংবা অন্য দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য নেই।
সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর একটি তালিকা নিচে প্রদান করা হল, যে বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে সাধারণত বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়,

মালয়েশিয়ার বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় সমূহ

বিশ্বের বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর সাথে মালয়েশিয়ার প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর তুলনা করা যায়। কারণ এখানকার প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় গুলো কিউ এস ওয়ার্ল্ড রেককিং এ খুব ভালো অবস্থানে আছে। এক থেকে ৫০০ এর মধ্যে প্রায় ৩০ টি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। যা পৃথিবীর খুব কম দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ই অর্জন করতে পেরেছে।
তাই বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশ থেকে মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা নেওয়ার জন্য পারি জমাচ্ছে। এমনকি চায়নার মত উন্নত দেশ থেকেও শিক্ষার্থীরা মালয়েশিয়ায় পড়াশোনা করতে আসছে। কারণ মালয়েশিয়ার ভালো পড়াশোনা ও পড়ার মাধ্যম ইংরেজী।
নিচে মালয়েশিয়ার সবচেয়ে ভালো প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় গুলির একটি তালিকা ও লিংক প্রদান করা হল।
(লিংকে ক্লিক করলে সংশ্লিষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পাবেন।)

  1. Limkokwing University (লিমককউইং ইউনিভার্সিটি)
  2. UCSI (ইউসিএসআই) INTI (ইনটি)
  3. Taylor’s University (টেইলর ইউনিভার্সিটি)
  4. MAHSA University (মাশা বিশ্ববিদ্যালয়)
  5. SEGI (সেগি ইউনিভার্সিটি),
  6. MULTIMEDIA University (মাল্টিমিডিয়া)
  7. Asia Pacific University of Technology (APU)
  8. NILAI University (নীলাই),
  9. KAGC College
  10. Curtin University
  11. Infrastructure University (ইনফ্রাসট্রাকচার ইউনিভার্সিটি)
  12. City University (সিটি ইউনিভার্সিটি)
  13. INTI International University
  14. Asia Metropolitan University (AMU)
  15. IHM College Malaysia
  16. KDU (কেডিইউ)
  17. Manipal International University (মানিপাল)।
    এছাড়াও আরো মালয়েশিয়ান বিশ্ববিদ্যালয় আছে যে গুলোতে বেশি বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রী যায় না।
    তাই সে গুলো নাম উল্লেখ করা করা হয় নি।

কোন সাবজেক্টে পড়বেন মালয়েশিয়ায়?

সাবজেক্ট পছন্দ করা সত্যিই একটি কঠিন কাজ। কারণ এর উপরই নির্ভর করে শিক্ষার্থীর কর্ম জীবন। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার সকল সাবজেক্ট সম্পর্কে একটি ধারণা প্রদান করা হল। এখান থেকে বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দের সাবজেক্ট। এখানে ভর্তির বেশকিছু নিয়ম আছে তবে,
এখানে ভর্তির জন্য বাংলাদের মত বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরিক্ষা দেওয়া লাগে না। তবে রেজাল্টের ভিত্তিতে অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেকে চান্স পায়।
আবার অনেকে চান্স পায় না। কোন কোন সাবজেক্টে ভর্তির জন্য এইচ এস সি তে বা এ লেভেলের নির্দিষ্ট বিষয়ের রেজাল্ট চাওয়া হয়।
চাহিদার চেয়ে কম হলে ভর্তির সুযোগ থাকে না। নিচে মালয়েশিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের উল্লেখযোগ্য সাবজেক্ট সমূহের লিস্ট দেওয়া হল।

কোন সাবজেক্টে পড়লে জীবনে কি হওয়া যায় এ বিষয়ে জানুন এখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবজেক্ট সমূহ।

মালয়েশিয়ায় স্কলারশিপ লাভের সূযোগ পাবেন কিভাবে?

মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষার জন্য নানা ধরনের স্কলারশিপের ব্যবস্থা আছে। তবে স্কলারশিপ লাভের জন্য খুব ভালো একাডেমিক রেজাল্ট থাকতে হয়।
এবং ইংরেজিতে ভালো দক্ষতার প্রমাণ দিতে হয়। খারাপ রেজাল্ট নিয়ে স্কলারশিপের জন্য শুধু শুধু প্রচেষ্টা করে লাভ নেই। তবে ফুল স্কলারশিপ না পেলেও আংশিক স্কলারশিপের সুযোগ আছে। নিচে মালয়েশিয়ায় পড়ালেখার জন্য যে সকল প্রতিষ্ঠান বৃত্তি দিয়ে থাকে তার একটি তালিকা দেওয়া হল-

মালয়েশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির যোগ্যতা কি?

ডিপ্লোমা কোর্স: ডিপ্লোমা কোর্সের জন্য নূনতম উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট প্রয়োজন হয়।
আন্ডার গ্র্যাজুয়েট কোর্স: আন্ডার গ্র্যাজুয়েট কোর্সের জন্য ন্যূনতম ১২ বৎসরের পূর্বতন শিক্ষা অর্থাৎ উচ্চ মাধ্যমিক সমমানের শিক্ষা
পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী: পোস্ট গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামের জন্য ন্যূনতম ১৬ বৎসরের পূর্বতন শিক্ষা অর্থাৎ ব্যাচেলর ডিগ্রীধারী।
ডক্টরাল (PhD) ডিগ্রী: ডক্টরাল (PhD) কোর্সের জন্য পোস্টগ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী এবং ব্যাপক গবেষণালব্ধ অভিজ্ঞতা দরকার হয়।
এছাড়া ব্যচেলর পাশ করেও মালয়েশিয়াতে ডিপ্লোমা অথবা পূনরায় ব্যচেলরে যাওয়া যায়। কারণ মালয়েশিয়াতে স্টাডি গ্যাপ গ্রহনযোগ্য।

ভাষাগত যোগ্যতা

মালয়েশিয়ায় আন্ডার গ্র্যাজুয়েট ও পোস্ট গ্র্যাজুয়েট পড়াশুনার জন্য বিদেশী শিক্ষার্থীদের ইংরেজী ভাষার নিম্নোক্ত যেকোন একটি যোগ্যতা থাকতে হবে।

মালয়েশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইন আবেদন এর জন্য ডকুমেন্টস

যে কোন কোর্সে ভর্তির জন্য সাধারণত তার আগের ক্লাশের সার্টিফিকেট ও মার্কসিট লাগে। সেই সাথে পাসপোর্ট ও ছবি প্রয়োজন হয়।
নিচে একটি ডকুমেন্টস এর তালিকা দেওয়া হল। তবে সময় সময় এগুলো ভেরি করে বা আপডেট হয়।

  • সকল একাডেমিক সার্টিফিকেট এবং মার্কশীট/ট্রান্সক্রিপ্ট।
  • এম.এস. ও পিএইচডি’র এর জন্য সিভি, মোটিভেশনাল লেটার ও রিকমেন্ডেশন লেটার।
  • পাসপোর্টের ইনফরমেশন পেজের ছবি/ কপি ও পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  • IELTS সার্টিফিকেটের কপি/ এম.ও.আই/ডুয়েলিঙ্গ প্রযোজ্য ক্ষেত্রে।

স্টুডেন্ট ভিসার পরামর্শ চান?

তাহলে গুগল ফরম টি পুরন করুন এখনি… এখানে ক্লিক করুন

অথবা যোগাযোগ করুন এখানে…

আমাদের ফেসবুক গ্রূপ এ যুক্ত হোন:
স্টুডেন্ট ভিসা সম্পর্কে যোগাযোগ করতে “স্টূডেন্ট ভিসা হেল্পলাইন” ফেসবুক গ্রুপ এ জয়েন করুন।
এই গ্রুপে পাবেন সকল দেশের স্কলারশিপ তথ্য। আবার মতামত ও প্রশ্ন করতে পারবেন যে কোন সময়।
গ্রূপ লিংক: www.facebook.com/groups/studentvisahelpline

মালয়েশিয়ার ইউনিভার্সিটি ও কলেজ ভর্তির ধাপ সমূহ

মালয়েশিয়ার এ্যডমিশন এবং ভিসা সিস্টেম অন্যান্য দেশের ভর্তি এবং ভিসা সিস্টেম থেকে একটু আলাদা। তবে অনেক বেশী সহজ। ইউনিভার্সিটি বা কলেজ থেকে অফার লেটার নিয়ে পরবর্তীতে ভিসার জন্য ইএমজিএস ফি দিতে হয়। EMGS (Education Malaysia Global Services) এর নিয়ম অনুযায়ী বর্তমানে অনেক দ্রুত ভিসা প্রসেস করা স্বম্ভব। মালয়েশিয়ার ভিসা প্রসেসিং এ আরো একটি সুবিধা হচ্ছে Student Visa Approved হওয়ার পরে টিউশন ফি কেলজ / ইউনিভার্সিটিকে দিতে হয়। এর কারনে মালয়েশিয়াতে স্টুডেন্ট ভিসা প্রসেস করা খুবই নিরাপদ।

ঘরে বসে ভিসা চেক করার নিয়ম

মালয়েশিয়ার স্টুডেন্ট ভিসা চেক করার জন্য ই.এম.জিএস. EMGS (Education Malaysia Global Services) এর ওয়েব সাইটে ভিজিট করুন।
আর হাঁ, এর জন্য কিন্তু আপনাকে মালয়েশিয়ান এ্যাম্বাসীতে যেতে হবে না। ঘরে বসেই ভিসা চেক করতে পারবেন। শুধু প্রয়োজন হবে ইন্টারনেট কানেকশন।
ল্যাপটপ কিংবা ডেক্সটপেরও প্রয়োজন নেই। মোবাইল দিয়ে ঘরে বসে ভিসা চেক করতে পারবেন। তবে এটি করতে হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের অফার লেটার পাওয়ার পর।
এবং ই.এম.জিএস. ফি দেওয়ার ৩ থেকে ১ সম্পাহ পর। কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে আপনি ফি জমা দেওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয় সে ফি টি ই.এম.জিএস. কতৃপক্ষের কাছে
পেীঁছাতে একটু সময় নেয়। যাই হোক ঘরে বসে স্টুডেন্ট ভিসা চেক করার লিংক পেতে এখানে ক্লিক করুন।

মালয়েশিয়ায় পড়াশোনার খরচ কত?

মালয়েশিয়ায় লেখাপড়া করার সবথেকে সুবিধা হচ্ছে, মালয়েশিয়ায় পড়াশোনার খরচ উন্নত দেশের ইউনিভার্সিটি বা কলেজ থেকে অনেক কম। ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা তে এক বা দুই বছরে টিউশন ফি দিয়ে মালয়েশিয়াতে স্বম্পুর্ন কোর্স শেষ করা যাবে।
কিন্তু সার্টিফিকেট এবং লেখাপড়ার মান কোন অংশেই ঐসব ইউনিভার্সিটি থেকে কম নয়।

মালয়েশিয়ান সরকারী বা বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট পর্যায়ে টিউশন ফি ৮৮২১ মার্কিন ডলার থেকে ১৭৬৪২ ডলার (সর্বমোট)।মাষ্টার্স পর্যায়ে খরচ পড়বে ৫৫৮৬ মার্কিন ডলার থেকে ১০২৯১মার্কিন ডলার (সর্বমোট)।
ডক্টরেট ডিগ্রীর গবেষনার জন্য খরচ পড়বে ৮৮২১ মার্কিন ডলার থেকে ১০২৯১ মার্কিন ডলার। মালয়েশিয়ায় একজন বিদেশী ছাত্র/ছাত্রীর জীবন যাত্রার বাৎসরিক ব্যয় ২৭০০ থেকে ৩০০০ মার্কিন ডলার।

মালয়েশিয়ায় পার্টটাইম জব করা যায় কি?

এখানে পড়াশোনা করা অবস্থায় একজন বিদেশী শিক্ষার্থী তার পূর্ণকালীন (Full Time) শিক্ষা শুরু করার পর কাজের জন্য সাধারনত অনুমতি পায় না।
তবে প্রায় শিক্ষর্থীরা বিশেষত যারা বাংলাদেশ থেকে পড়াতে যায় তারা পার্ট টাইম জব করে। কারণ অন্য আইনের মত এই বিষয় ততটা কড়াকড়ি করে না
মালয়েশিয়ার কতৃপক্ষ।এ ক্ষেত্রে ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে অনলাইন ইনকাম হতে পারে সবচেয়ে উপযুক্ত।

বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য মালয়েশিয়ার জীবনযাত্রা:

এক কথায় বলতে গেলে মালয়েশিয়ার জীবন যাত্রার মান খুবই উন্নত। এখানে একজন ছাত্র/ছাত্রী খুবই মানসম্মত জায়গায় খুবই কম খরচে থাকতে পারবেন।
স্বভাবিক ভাবে মালয়েশিয়া খুবই পরিষ্কার একটি দেশ। এখানে যাতায়ত ব্যবস্থা খুবই উন্নত। ৫/৬ ধরনের মেট্রো ট্রেন এর ব্যবস্থা রয়েছে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে।

আরও পড়ুন:

মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা বিষয়ক কনসালটেন্সি প্রতিষ্ঠান :

বর্তমানে বাংলাদেশের বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান এ বিষয়ে শিক্ষার্থীদের মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষার জন্য সহযোগিতা করছে।তবে অনেকেই স্টুডেন্টদের সাথে নানা ধরনের প্রতারণা করে থাকে।
আবার ভালো প্রতিষ্ঠানও রয়েছে। তা না হলে তো এত বাংলাদেশী শিক্ষার্থী বিদেশে পড়তে যাওয়ার সুযোগ হয়তো পেতো না। পেলেও সংখ্যায় কম হত। তাই দেশে শুনে সিদ্ধান্ত নিন।

যে বিষয় গুলো মাথায় রাখবেন

মালয়েশিয়া কিংবা যে কোন দেশে পড়তে যান না কেন আপনার লেখা পড়ার যোগ্যতা, অর্থনৈতিক সামর্থ্য, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা অনুযায়ী কোর্স ও ইউনিভার্সিটি সিলেক্ট নির্বাচন করুন।
ফ্লাই করার পূর্বে মালয়েশিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত ধারনা ও তথ্য নিন। প্রয়োজনে একটি ডাইরী কিনে তাতে মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষার জন্য যাবতীয় তথ্য যখন যেখানে পাবেন তা লিখে রাখুন।
এতে করে মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পর স্টুডেন্টকে কোনো ভোগান্তিতে পড়তে হবে না। অন্যের কাছে তথ্য জানার আগে গবেষণা করে আপনার জন্য পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয় ও কোর্স
নির্ধারণ করুন। তাহলে মঙ্গল আপনা্রই হবে।

মালয়েশিয়ার পড়াশোনা বিষয়ে আরও পড়বেন কিভাবে?

গুগুলে এই ট্যাগসমূহ লিখে সার্চ দিতে পারেন। তাহলে আরও অনেক তথ্য পাবেন আশা করি। যেমন,  মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা, মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ২০২৩, 
ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া, malaysia student visa cost bd, মালয়েশিয়ায় ডিপ্লোমা কোর্স, মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ২০২৩, ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া, ছাত্রদের জন্য মালয়েশিয়ায় পার্টটাইম জব, মালয়েশিয়া স্কলারশিপ ২০২৩।
Malaysia Student Visa from Bangladesh, Study in Malaysia from Bangladesh, মালয়েশিয়ায় ডিপ্লোমা কোর্স, মালয়েশিয়ার খবর

মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা ও স্কলারশিপ পেতে চাও?

২০২৩ সেশনে মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা ও স্কলারশিপ আবেদনের নতুন নিয়ম জানতে ঘরে বসে ফ্রি অনলাইন পরামর্শ নাও আজই।
রেজিস্ট্রেশন করতে কল করুন 01711-981051
বাংলাদেশের Study in Malaysia স্টুডেন্ট এ্যাডভাইজারী সেবার অন্যতম প্রতিষ্ঠান সেবারু ডট কম নিশ্চিত করছে,

✅ এয়ারপোর্ট পিক আপ ও ড্রপ সেবা
✅ পার্টটাইম জবের সহযোগিতা।
✅ ১৩ বছরে অভিজ্ঞ কনসালটেন্ট।
✅ সঠিক তথ্য প্রদান।
✅ ক্ষেত্র বিশেষে ভিসার পর টাকা দেওয়ার সুযোগ।
✅ পড়াশোনাকলীন প্রয়োজনীয় জরুরী সহযোগিতা।

মালয়েশিয়ায় পড়াশোর সুবিধাসমূহ

✅ IELTS ছাড়াই এপ্লাই করা যায়।
✅ স্ট্যাডি গ্যাপ এক্সেপ্টেড।
✅ Bank Statement লাগে না।
✅ তুলনামূলক কম খরচে পড়াশোনা ও আবাসন সুবিধা।
✅ ইউরোপ, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও কানাডায় ক্রেডিট ট্রান্সফারের সুযোগ।

প্রিয় শিক্ষার্থীবৃন্দ, এছাড়াও যে সকল দেশের উচ্চশিক্ষা ও স্কলারশিপ আছে,

✅ India ✅ UK ✅ Canada ✅ USA ✅ Urope ✅ Australia সহ বিভিন্ন দেশের Student/ visit/ schooling বিস্তারিত এখানে…

🎯 বিঃদ্রঃ সারাদেশে আমাদের সঙ্গে কাজ করার জন্য সাবএজেন্ট নিয়োগ চলছে। ফ্রি প্রশিক্ষণ ও ম্যাটারিয়াল প্রদান করা হবে।

🏠 ঠিকানা :

👉 ঢাকা: আরএইচ হোম সেন্টার, সুইট-৫১১, ৭৪/বি/১, গ্রীন রোড, ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫, বাংলাদেশ ।

👉 কেরানীগঞ্জ: সেবারু, সুইট নং-সি-১, দ্বিতীয় তলা, ঘাটারচর, বসিলা রোড, কেরানীগঞ্জ, ঢাকা।

👉 চট্টগ্রাম : বাড়ি-৬৬, রোড-৬, ও.আর.নিজাম রোড, জিইসির মোড়, চট্টগ্রাম।

👉 রংপুর : মোস্তফা সুপারমার্কেট, ২য় তলা, জাহাজ কোম্পানি মোড়, রংপুর, বাংলাদেশ।

শেষ কথা

মালয়েশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পড়াশোনার মান উন্নত হওয়ায় ইউরোপ, আমেরিকা ও কানাডা মালয়েশিয়ান ডিগ্রি গুলো গ্রহন করে থাকে।
শুধু তাই নয়, মালয়েশিয়ায় পড়াশুনার খরচ ও থাকা খাওয়ার খরচ তুলনামূলক অনেক কম। অর্থাৎ বাংলাদেশের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের মত।
দেশের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে পড়াশোনার যেমন খরচ হয় মালয়েশিয়ায় প্রায় একই রকম খরচ হয়। সর্বপরি বলা যায়
বাংলাদেশের সাথে মালয়েশিয়ার সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় মিল থাকায় প্রচুর ছাত্র-ছাত্রী উচ্চশিক্ষার জন্য মালয়েশিয়া পাড়ি জমাচ্ছে।


স্টুডেন্ট ভিসা বিষয়ে প্রশ্ন থাকলে নিচের লাইনটি ফলো করুন। সেবারু ডটকম (shebaru.com) আপনার পাশে আছ সবসময়।
এই লিংক গুলোতে ক্লিক করুন: স্টুডেন্ট ভিসা ফ্রি পরামর্শ ফরম।। স্টুডেন্ট ভিসা ফেসবুক গ্রুপ।। ইউটিউব চ্যানেল।। সরাসরি যোগাযোগ
Mobile & What’s App: +8801711981051 / What’s app (10 am-9pm)। এই সময়ের মধ্যে কল করুন প্লিজ।

লেখাটিতে উপকার পেয়েছেন? আবার পড়তে চান? তাহলে শেয়ার করুন।

9 thoughts on “মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা স্কলারশিপ ও ক্যারিয়ার ২০২৩”

  1. Headache meds for sale

    Thanks for your tips. One thing we have noticed is always that banks and also financial institutions have in mind the spending behavior of consumers and also understand that a lot of people max away their own credit cards around the holiday seasons. They prudently take advantage of this kind of fact and begin flooding the inbox and also snail-mail box together with hundreds of Zero APR card offers immediately after the holiday season finishes. Knowing that in case you are like 98% of all American

    1. এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ফি সহ সকল বিষয়ের আপডেট ভর্তি তথ্য জানতে দয়া করে উপরের নম্বরে ফোন দিন।

  2. sir আমার প্রশ্ন হলে আমি NU বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাএ বর্তমানে আমি স্যার কি মালায়শিয়া বা ইন্দোনেশিয়া কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের বদলি হয়ে যেতে পাড়বো বাংলাদেশ থেকে একটু বলেন দয়া করে??

  3. Pingback: Study in Malaysia from Bangladesh in 2021 with Scholarship – BMSCL Blog

  4. আমি ফরিদপুর রাজেন্দ্র কলেজে “ইতিহাস” এ অনার্স করছি 2nd Year । আমি কি মালয়েশিয়ায় পড়তে যেতে পারবো । প্লিজ জানাবেন। উপকৃত হব।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *